শিরোনাম :
নামাজ আদায়ের অনুমতি দেওয়া হয়েছে মালয়েশিয়ার মসজিদগুলিতে প্যানেল চেয়ারম্যান আক্কাস সরদারকে হত্যাচেষ্টা মামলার ১৩ আসামী গ্রেপ্তার করোনা থেকে মুক্ত থাকতে স্বাস্থ্য বিধি মেনে ঘরে বসে ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াশোনা করতে হবে -টুক এমপি কেশবপুরে মেছো বাঘকে পিটিয়ে হত্যা পদ্মায় ভাঙ্গনের ২৪ ঘন্টায় ভাঙ্গন প্রতিরোধের ব্যবস্থা করলেন উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম সিরাজগঞ্জে নতুন করে ৩৭ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত পোরশায় ডাক্তারসহ আরও ৫ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত বাংলাদেশে একদিনে আবারো চার হাজারের বেশি করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত বিএনপির বাজেট প্রত্যাখ্যান ঢামেক করোনা ইউনিটে দুইদিনে ১৬ জনের মৃত্যু
৩ দশকপর শিরোপা! ১৭ বছর পর চুল কাটাবেন লিভারপুল সমর্থক

৩ দশকপর শিরোপা! ১৭ বছর পর চুল কাটাবেন লিভারপুল সমর্থক

আলোকিত ডেস্ক : শিরোপা হাতে নিয়ে ফটোসেশনের আনুষ্ঠানিকতার অপেক্ষায় লিভারপুল। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে দীর্ঘ ৩০ বছর পর শিরোপা ধরা দিল লিভারপুলের। ৭ ম্যাচ আগে থাকতেই শিরোপা নিশ্চিত করেছে দলটি। 

লিগে এবারের চ্যাম্পিয়ন হয়ে ইয়ুর্গেন ক্লপের শিষ্যরা যখনে উৎসবে মশগুল তখন জানা গেল দলটির এ দিনের অপেক্ষায় ১৭ বছর ধরে চুলে কাঁচি লাগাননি এক সমর্থক।লিভারপুলের এই পাড়ভক্তের নাম উকে ক্রিসনিকি। তার জন্ম কসোভাতে। তবে এখন থাকছেন ভ্যাঙ্কুভারে। ৩৭ বছর বয়সী ক্রিসনিকি সেখানে একটি বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করছেন।

ক্রিসনিকি পণ করে বসেছিলেন যে, লিভারপুল প্রিমিয়ার লিগ শিরোপা না জিতলে কখনই চুল কাটাবেন না। এভাবেই কেটে গেছে ১৭টি বছর।

এমনিতেও বড় চুলই রাখতেন এই রেড সমর্থক। কিন্তু সেটা কেবল স্টাইলের জন্য। ২০১৪ সালে সিদ্ধান্ত নেন, লিভারপুল শিরোপা না জিতলে আর কখনই চুল কাটাবেন না। বন্ধু ও পরিবার থেকে অনেকবারই চাপাচাপি করা হয়েছে। কিন্তু অনড় ছিলেন লিভারপুলের এই পাগল সমর্থক।

শত বাঁধা সত্ত্বেও কিছুতেই রাজি হননি তিনি। অলরেডদের হাতে শিরোপা উঠলেই তিনি চুলে কাঁচি লাগাতে দেবেন। অবশেষে তার অপেক্ষার অবসান হলো।

গণমাধ্যমকে ক্রিসনিকি জানান, কয়েকবার হতাশায় ডুবেছি। তবে শেষ পর্যন্ত হলো। আমার স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। দল দাপুটে খেলে চ্যাম্পিয়ন এখন। এই মুহূর্তটার অপেক্ষায়। আমি বলেছিলাম, যতদিন লাগবে থাকুক। যেদিন দেখব জর্ডান হেন্ডারসন ট্রফিটা হাতে নিয়েছেন, সেদিনই স্ত্রীকে দিয়ে চুলগুলো কাটিয়ে ফেলব। ’

সংবাদমাধ্যম ফুটবল প্যারাডাই জানিয়েছে, ছেলেবেলা থেকেই লিভারপুল সমর্থক উকে ক্রিসনিকি। তার বাবাও ছিলেন লিভারপুল ভক্ত। বাবার সঙ্গে খেলা দেখতে দেখতে অলরেডদের প্রতি ভালোবাসা জন্মায় ক্রিসনিকির।

১৯৮৯-৯০ মৌসুমে (১৯৯০ সালে) সর্বশেষ ইংলিশ ফুটবলে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল অলরেডরা। কিন্তু পেশাদার ফুটবলের যুগে সেই জৌলুস কেন যেন হারিয়ে যায় লিভালরপুলের। শিরোপার দেখা তো দূরে থাক, অনেক সময় লিগ টেবিলের তলানির দিকেও চলে যেতে থাকে তারা। মাঝে-মধ্যে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার যোগ্যতাও হারিয়ে ফেলতো। তবে এবার হতাশ হতে হয়নি লিভারপুলের সমর্থকদের। ৭ ম্যাচ আগে থাকতেই শিরোপা নিশ্চিত করেছে দলটি। 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




কপিরাইট © ডেইলি আলোকিত সকাল - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত